ইনহেলার

ইনহেলার

#অণুগল্প
#ইনহেলার
#ঝিলিক_মুখার্জী_গোস্বামী

-‘এবার এটা ছাড়ুন’।
-‘অনেক দিন তো হল’!

মধ্যরাতে মাঝেমধ্যেই বুকের বাম পাশে হাত দিয়ে, অন্ধকারময় ঘরে আঁধারকে সাক্ষী করে বসে থাকে সৃঞ্জয়। দু’টো মানুষের মাঝে থেকেও তার একাকিত্ব কেউ টের পায় না। টের পেতে দেবে না বলেই, জানান দেয় না। মাসের পর মাস। বছরের পর বছর।

আগে যদি টের পেত…..

অপর শরীরের, সৃঞ্জয়ের দিকে দৃকপাত করার মতো সময় নেই।

সংসারটা নিয়ে না খেলাই ভালো!
সেটাকে গুছিয়ে রাখতে হয়।

সৃঙ্গারের ব্যবহারে সবকিছু টের পেয়েও নির্লিপ্ত থাকে সে। সৃঙ্গারের ললাটে, কার নামের সিঙ্গার! বেশ জানে।

নীরবতা, দূর্বলতার প্রমাণ!
নীরবতা কখনও কথা বলে।

-‘এত টানিস না সৃঞ্জয়’।
-‘মরে যাবি’।

পকেটে থাকা সবুজ রঙের খাপে মোড়া সাদা জিনিসটা তুলে ধরে সৃঞ্জয়। মুখে মুচকি হাসি।

-‘হ্যালো’!
-‘এভাবে আর পারা যাচ্ছে না’!
-‘জাস্ট অসহ্য’।
-‘প্ল্যানটা…….’

রোজকার মতো উপোস করেই অফিসের দিকে রওনা দেয় সৃঞ্জয়। কাজের ফাঁকে ফাঁকেই উঠে যায়। কাজের চাপে মাথা হালকা করার জন্য তার চাই ই চাই। একটা অন্যরকম আত্মিকতা গড়ে উঠেছে যেন। যেটা গড়ে ওঠা দরকার ছিল অন্য কারোর সাথে।

-‘সৃঞ্জয়, সৃঞ্জয়’!
-‘এত হাঁফ ছাড়ছিস কেন’?
-‘ঘামছিস’।

-‘আমার…..’

ওয়ান সিটার সোফায় বসে, জিনিসটা নিয়ে খেলছে সৃঙ্গার। ফিসফাস শব্দ তুলে সাদা বাষ্পগুলো এদিক-ওদিক ছুটে বেড়াচ্ছে। কুটিল হাসি। নীল রঙা চোখজোড়া জ্বলজ্বল করছে।

-‘হ্যালো’!
-‘মিসেস সৃঞ্জয় বলছেন’?

গল্পটি আপনার কেমন লাগলো রেটিং দিয়ে জানাবেন
[Total: 0   Average: 0/5]
বন্ধুদের সঙ্গে "Share" করুন।
Open chat
1
যোগাযোগ করুন
আপনার গল্পটি প্রকাশ করার জন্য যোগাযোগ এখনে।