কি করে বলবো তোমায় (পর্ব - ২ )

কি করে বলবো তোমায় (পর্ব – ২ )

রূপকথা কেবিনের সামনে গিয়ে দরজায় নক করল ।
রূপকথা :Sir…May I come in
স্যার : Yes…. come in.
রূপকথা কেবিনের ভেতরে ঢুকে দেখে স্যার দেয়ালের দিকে মুখ করে বসে একটা ফাইল চেক করছে ।
রূপকথা : স্যার…..
স্যার : (সামনে ফিরে)… Yes….
রূপকথা স্যার কে দেখে crush খেয়ে গেলো।
(আদিত্য চ্যাটার্জি
চ্যাটার্জি গ্রুপ অফ কোম্পানির মালিক।যেমনি হ্যান্ডসাম তেমনি অ্যাটিটিউড। গায়ের রং ফর্সা।হাইট ৬ ফুট। বয়স ৪০ কিন্তু এখন ও দেখলে মনে college student । শরীরে একটু ও মেদ নেই । নিয়মিত জিম করে। )

আদিত্য রূপকথা কে দেখে চোখ সরাতে পারছেনা । মনে মনে বললো…. এতো সুন্দর । ঠিক স্বর্গের অপ্সরী মনে হচ্ছে।

রূপকথা : স্যার…..
আদিত্য : (. রূপকথার ডাকে কল্পনার জগত থেকে বেরিয়ে এলো) মিস চৌধুরী
আপনি আজকে ১৫ মিনিট লেট করে ঢুকেছেন তাও আপনার আজকে প্রথম দিন অফিসে…..
রূপকথা : sorry স্যার…… রাস্তায় খুব জ্যাম ছিল তাই দেরি হয়ে গেছে…..
আদিত্য : নেক্সট বার না হয়….
রূপকথা কেবিন থেকে বেরিয়ে নিজের জায়গায় এসে বসলো।
আদিত্য মনে মনে বললো…. আচ্ছা মিস চৌধুরী কে দেখে আমার ওরকম অনুভূতি হচ্ছে কেন?? এর আগে অনেক মেয়ের সঙ্গে অফিসে কাজ করেছি কিন্তু এই রকম ফিলিংস হয়নি তো । তাহলে ওকে দেখে এরকম হলো কেন ।

আজকে রূপকথার অফিসে কাজের কোন চাপ ছিল না ।

রূপকথা বাড়িতে ফিরে এসে ওর মাকে জোরে জোরে চিৎকার করে ডাকলো ম
রূপকথা : মা ….ও মা । কোথায় তুমি
মা : কি হয়েছে ??এতো চিৎকার করছিস কেন
রূপকথা : তাড়াতাড়ি খেতে দাও….
মা : আগে….হাত মুখ ধুয়ে আয় …
রূপকথা হাত মুখ ধুয়ে এসে খেতে বসলো।

এক সপ্তাহ কেটে গেল। পিওন এসে রূপকথা কে বললো স্যার ডাকছেন।
রূপকথা : ঠিক আছে আমি যাচ্ছি.

রূপকথা কেবিনের দরজায় নক করল
রূপকথা : may I come in
আদিত্য : yes…. come in
কালকে সিঙ্গাপুর থেকে ক্লায়েন্ট আসবেন । আপনি একটা presentation তৈরি করে আনুন ।
রূপকথা : স্যার আমি আগেই করে রেখেছি।
আদিত্য : তাহলে আপনি আমাকে মেইল করে দিন
রূপকথা : ঠিক আছে…
রূপকথা জায়গায় গিয়ে স্যার কে মেইল করে দিলো
বিকেল বেলায় ….. রূপকথা কে ডেকে পাঠালেন
রূপকথা এসে দাঁড়িয়েছে তখন আদিত্য বললো….
আদিত্য: presentation এ কিছু ভুল আছে
ঠিক করতে হবে । আপনি সবকিছু নিয়ে আসুন…
রূপকথা : স্যার…. এখন
আদিত্য : হ্যা…. এখন ই
রূপকথা মনের দুঃখে সবকিছু আনতে গেলো। সবাই কে বাড়ি যেতে দেখে ওর মন খারাপ হয়ে গেল।
কাজ করতে করতে অনেক রাত হয়ে গেল। বাইরে বেরিয়ে দেখে রাস্তায় একটা ও লোক নেই । কয়েকটা প্রাইভেট কার ছাড়া কিছুই চলছে না।ও বাড়ি কি করে যাবে ভাবছে।

হঠাৎ স্যার এর ড্রাইভার এসে গাড়ির দরজা খুলে দিল তারপর বললো …. স্যার আপনাকে বাড়িতে পৌঁছে দিতে বলেছেন।
রূপকথার এখন কোন উপায় নেই তাই ও গাড়িতে উঠে বসলো তারপর ড্রাইভার ওকে বাড়িতে পৌঁছে দিলো….

চলবে…..
লেখিকা – Swathi Dey

গল্পটি আপনার কেমন লাগলো রেটিং দিয়ে জানাবেন
[Total: 0   Average: 0/5]
বন্ধুদের সঙ্গে "Share" করুন।
Open chat
1
যোগাযোগ করুন
আপনার গল্পটি প্রকাশ করার জন্য যোগাযোগ এখনে।