মন তোমার অপেক্ষায়

মন তোমার অপেক্ষায়

মন তোমার অপেক্ষায়

লেখক সব্যসাচী সেন

 

স্বামীর পত্র

প্রিয়তমেসু,

তুমি আমার স্বপ্নের রঙ
তুমি আমার ভালোবাসার তুলি
তুমি আমার রাত্রির নভে
ছোট ছোট তারকা গুলি

জোছনায় মোড়া সবুজ ঘাসের গালিচায়,দুধ সাদা শালোয়ার স্যুট পরেছিলে। বাটিকের ওড়না নেমে গিয়েছিল কাঁধ থেকে পিছলে।মনে হচ্ছিল,কোনো এক পরী যেন ডানা মেলে উড়ে এসে বসেছে।নির্জন রিসর্টে। তুমি বলেছিলে, “মন,অমন করে কি দেখছো?”
আমি অস্ফুটে বলেছিলাম,”তোমাকে।” মধুজামিনী গভীর থেকে গভীরতর হচ্ছে। আমরা নিবিড়ভাবে একে অন্যে মিশে গেলাম।মনে আছে ? জ্যোৎস্না স্নানের শুদ্ধতায়,সুচি হলাম দুজনে। তারপর মিশে গেলাম,মিলে গেলাম,এক হয়ে গেলাম। আমাদের মধুচন্দ্রিমা,পাহাড় ঘেরা,পাইন ঘেরা, কলকলিয়ে বয়ে চলা ছোট্ট নদীটির পাশে। তুমি গেয়ে উঠেছিলে–

আমার সকল রসের ধারা
তোমাতে
আজ হোক না হারা

তবে হারিয়ে গেলে কেন? এমনটা তো কথা ছিল না।

বসে মুখোমুখি
দু’জনেই সুখি
মেঘেরই আড়ালে ছিল
চাঁদেরই সে উঁকি……মনে পড়ে?

মনে পড়ে ? সে শপথ,সে অঙ্গিকার? এক সাথে পথ চলার। তখন তুমি ষোলো,বোধহয়। আমার আঠেরো।প্রেম এসে ছিল নিঃশ্বব্দ চরণে। রাঙিয়ে দিয়ে গিয়েছিল। তোমার, আমার মন।

আজও তারা জাগে
বড়ো একা লাগে
দুটি চোখ বেদনার
জলে আসে ভিজে

ভুলবোঝাবুঝি কার না হয় বলো? সব সংসারেই তো মনোমালিন্য হয়।তাই বলে একমাস বাবার বাড়ি গিয়ে বসে আছো! একটিবারের জন্যও ফোন ধরলে না।এতো রাগ ভালো না।বলে দিলাম। এবার যদি না মানো আমি রাগ করবো।বলে দিলাম।
এবার ফিরে এসো। লক্ষিটি।
তোমার মন,
তোমার অপেক্ষায়॥

পুনশ্চ : আসার সময় সেই সাদা চুড়িদার টা পরে এসো।ওটাতে তোমাকে খুব মিষ্টি দেখায়। আর হ্যাঁ একটু সীতাভোগ নিয়ে এসো। তুমি তো জানো তোমার বাড়ির পাশের দোকানটার সীতাভোগ আমার ফেভারিট।

গল্পটি আপনার কেমন লাগলো রেটিং দিয়ে জানাবেন
[Total: 2   Average: 5/5]
বন্ধুদের সঙ্গে "Share" করুন।
Open chat
1
যোগাযোগ করুন
আপনার গল্পটি প্রকাশ করার জন্য যোগাযোগ এখনে।